Breaking News

‘শারীরিক অক্ষমতা’ থাকায় বিয়ের ৪ দিনের মাথায় স্বামীকে হত্যার অভিযোগ

রাজশাহীর বাগমারায় বিয়ের চারদিন পর স্বামীকে বালিশচাপা দিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্ত্রীর বিরুদ্ধে।

সোমবার (২৮ আগস্ট) দিবাগত রাতে উপজেলার সাইপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় স্ত্রী শাপলা খাতুনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশনিহত আব্দুর রাজ্জাক (৩১) রফিকুল ইসলামের ছেলে। 

রাজ্জাক একজন নির্মাণ শ্রমিক। আগের স্ত্রীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হওয়ার পর গত শুক্রবার পার্শ্ববর্তী মোহনপুর উপজেলার ধুরইল গ্রামের মো. শুকুরদীর মেয়ে শাপলা খাতুনের (১৮) সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছিল। শাপলা খাতুনেরও এটি দ্বিতীয় বিয়ে ছিল।

বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম জানান, রাতে স্বামীকে বালিশচাপা দিয়ে হত্যার পর ঘরেই ছিলেন শাপলা। সকালে পরিবারের সদস্যরা হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি বুঝতে পারলে পুলিশে খবর দেন। 

এরপর পুলিশ শাপলাকে আটক করেতিনি জানান, শাপলা একেকবার একেক রকমের কথা বলছেন। তিনি কখনও বলছেন যে, তারা স্বামী-স্ত্রী একে অপরকে বালিশচাপা দিয়ে খেলতেন। এতে রাজ্জাকের মৃত্যু হয়েছে। আবার কখনও বলছেন, তার স্বামী শারীরিকভাবে অক্ষম ছিলেন। এ কারণে রেগে গিয়ে তাকে বালিশচাপা দিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, শারীরিক অক্ষমতার কারণেই শাপলা তার স্বামীকে খুন করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। কারণ, এই একই কারণে আগের স্ত্রীর সঙ্গে রাজ্জাকের ছাড়াছাড়ি হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বাগমারা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুব্রত দাস জানান, মঙ্গলবার সকালে রাজ্জাকের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে। দুপুরে গ্রেফতার শাপলাকেও আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Type and hit Enter to search

Close