Breaking News

সখীপুরে এক কেন্দ্রে দুই পরীক্ষার্থী, দায়িত্বে ছিলেন ১২ জন

চলতি এইচএসসি পরীক্ষায় পরিসংখ্যান বিষয়ে টাঙ্গাইলের সখীপুর আবাসিক মহিলা কলেজ কেন্দ্রে মাত্র দুজন পরীক্ষার্থী ছিলেন। তবে এই দুজনের পরীক্ষা নেওয়ার জন্য আজ রোববার কেন্দ্রে ১২ জনকে দায়িত্ব পালন করতে হয়েছে। সরকারি মুজিব কলেজের ব্যবসায় শিক্ষা শাখার দুই শিক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নেন।

৬ নভেম্বর থেকে সারা দেশে এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হয়। ১৩ ডিসেম্বর পরীক্ষা শেষ হবে।

মহিলা কলেজ কেন্দ্র সূত্র জানায়, উপজেলায় এইচএসসি পরীক্ষার দুটি কেন্দ্র রয়েছে। সখীপুর আবাসিক মহিলা কলেজ কেন্দ্রে উপজেলার ৪টি কলেজের ৯৪৮ পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করছেন। 

রোববার ওই কেন্দ্রে সকালে কৃষি শিক্ষা ও বিকেলে পরিসংখ্যান প্রথম পত্রের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। সকালের পরীক্ষায় ৬১৩ জন অংশ নিলেও বিকেলে অংশ নেন মাত্র দুজন। এই দুজনের জন্য একজন কেন্দ্রসচিব, পরীক্ষা কমিটির তিনজন, ইউএনওর প্রতিনিধি একজন, প্রশ্ন তুলতে ট্যাগ কর্মকর্তা একজন, কেন্দ্র প্রত্যবেক্ষক একজন, করণিক দুজন, পুলিশ দুজন, পিয়ন একজনসহ মোট ১২ জন দায়িত্ব পালন করেন। কেন্দ্রের চারপাশে ১৪৪ ধারা জারিসহ সব আনুষ্ঠানিকতাই ছিল।

কেন্দ্রের পরীক্ষা কমিটির প্রধান অরুন কুমার সাহা বলেন, সরকারি মুজিব কলেজের ব্যবসায় শিক্ষা শাখার রিয়াদ হাসান ও জনি মিয়া নামের দুই শিক্ষার্থী চতুর্থ বিষয় হিসেবে পরিসংখ্যান পরীক্ষা দিতে কেন্দ্রে আসেন। 

তাঁদের একটি কক্ষে বসানো হয়। পরীক্ষার্থী দুজন হলেও আয়োজনের কোনো কমতি ছিল না। বেলা পৌনে একটায় থানা থেকে প্রশ্নপত্র আনা, হল পরিদর্শক নিয়োগ, কেন্দ্রের নিরাপত্তা—সবই ছিল।

বেলা চারটায় পরীক্ষা শেষ করে রিয়াদ হাসান ও জনি মিয়া বলেন, দুজনের জন্য ১২ জন দায়িত্ব পালন করেছেন—এ কথা শুনে নিজেদের একটু গুরুত্বপূর্ণ মনে হয়েছে। পরীক্ষাও ভালো হয়েছে। সবকিছু মিলে ভালো লেগেছে। 

আগামীকালও দুজনের পরিসংখ্যান দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষাও একইভাবে দিতে হবে। সখীপুর আবাসিক মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ও কেন্দ্রের সচিব এস এম জাকির হোসাইন জানান, পরীক্ষার্থী দুজন হলেও বোর্ডের বিধি মোতাবেক সবারই নিজস্ব দায়িত্ব পালন করতে হয়েছে।



Type and hit Enter to search

Close