Breaking News

বিয়ের আসর থেকে বর উঠে যাওয়ায় কনের আ- ত্ম- হ- ত্যা

খুলনার পাইকগাছায় লগ্ন পেরিয়ে গেলে বিয়ে না করে বর চলে যাওয়ায় আত্মহত্যা করেছেন মিতু মণ্ডল (১৯) নামের এক তরুণী। 

শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) বিকাল ৫টার দিকে উপজেলার লতা ইউনিয়নের মুনকিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।মিতুর বাবা তাকে নামিয়ে পাইকগাছা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে মিতু মণ্ডল মারা যান। এ ঘটনায় মৃত্যুর প্ররোচনায় থানায় মামলা হয়েছে।

মিতু মণ্ডলের বাবা ঠাকুরদাশ মণ্ডল বলেন, আমার মেয়ের সঙ্গে বটিয়াঘাটা উপজেলার কায়ুমখালীর কৃষ্ণ মণ্ডলের ছেলে সুদিপ্ত মণ্ডলের (২২) গত সোমবার বিয়ের দিন ধার্য ছিল। 

বিয়েতে সঠিক সময়ে ছেলেপক্ষ না আসায় লগ্ন পেরিয়ে যায়। পরের লগ্নে বিয়ে দিতে চাইলে ছেলের বাবা রাজি হননি। পরে ছেলের বাবার সঙ্গে কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায় ছেলে বিয়ের আসর থেকে চলে যায়। 

মেয়ে এতে মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে। এ কারণে গত শুক্রবার বিকাল ৫টার দিকে গলায় রশি পেঁচিয়ে ঘরের আড়ায় ঝুলে পড়ে। তাকে নামিয়ে পাইকগাছা হাসপাতালে নিয়ে আসি। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে সে মারা যায়।

পাইকগাছা থানার ওসি মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, গলায় রশি পেঁচিয়ে একটি মেয়ে আত্মহত্যা করে। তার লাশের ময়নাতদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মৃত্যুর প্ররোচণায় থানায় বরের বাবা কৃষ্ণ মণ্ডল ও বর সুদিপ্ত মণ্ডলের নামে মামলা হয়েছে।

Type and hit Enter to search

Close