Breaking News

কচুয়ায় স্বামীর গোপনাঙ্গ ব্লেড দিয়ে কেটে দিলেন স্ত্রী

চাঁদপুরের কচুয়ায় জয়নাল আবদীন (২৫) নামের এক যুবকের গোপনাঙ্গ কেটে দিয়েছেন তার স্ত্রী। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন।

সোমবার (১ মে) রাতে উপজেলার চাঁনপাড়া গ্রামের তাজউদ্দিন হাজী বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। জয়নাল আবদীন কচুয়ার চানঁপাড়া গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে।এ ঘটনায় মঙ্গলবার (২ মে) রাতে ভুক্তভোগী জয়নালের ভাই আব্দুল মতিন বাদী হয়ে কচুয়া থানায় মামলা করেছেন। ওই মামলায় বুধবার (৩ মে) সকালে অভিযুক্ত স্ত্রী রুপিয়া বেগমকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।


স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ৯ বছর আগে জয়নাল আবদীনের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী দাউদকান্দি উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের লাল মিয়ার মেয়ে রুপিয়া বেগমের বিয়ে হয়। সাংসারিক জীবনে তাদের এক কন্যা ও এক ছেলেসন্তান রয়েছে।


স্থানীয়রা জানান, জয়নাল আবদীন তার স্ত্রীর প্রতি বেশি আসক্ত ছিলেন। বিয়ের পর থেকে স্ত্রীকে চোখের আড়াল হতে দিতেন না। এনিয়ে দুজনের মধ্যে মনোমালিন্য ছিল। তবে এটি বাদে তাদের মধ্যে কোনো পারিবারিক দ্বন্দ্ব ছিল কিনা তা কেউ নিশ্চিত করে বলতে পারেননি।


মামলা সূত্রে জানা যায়, ঘটনার দিন রাতে স্বামী-স্ত্রী উভয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। পরে রাত সাড়ে ১০টার দিকে রুপিয়া বেগম তার স্বামীর গোপনাঙ্গ ধারালো ব্লেড দিয়ে কেটে ফেলেন। এসময় জয়নাল আবদীনের চিৎকারে পরিবারের সদস্যরা এসে তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করেন।

প্রথমে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা শেষে জয়নালকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন।

কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ইব্রাহিম বলেন, এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর ভাই মামলা করেছেন। মামলার পরিপ্রেক্ষিতে আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে কী কারণে তিনি এমন করেছেন তা এখনো জানা যায়নি। আহত জয়নাল সুস্থ হয়ে ফিরে এলে ঘটনার প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

Type and hit Enter to search

Close