Breaking News

কালিহাতীতে মাদ্রাসা ছাত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার, সুষ্ঠু তদন্তের দাবি

সাইদুর রহমান সমীর, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি:
টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে রাকিবুল (১১) নামের এক মাদ্রাসা ছাত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় উপজেলার নাগবাড়ী ইউনিয়নের গান্ধিনা জান্নাতুল ফেরদৌস মাদ্রাসা থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

রাকিবুল উপজেলার কোকডহরা ইউনিয়নের টেঙ্গুরিয়া গ্রামের বদিউজ্জামানের ছেলে ও ওই মাদ্রাসার নূরানী বিভাগের ছাত্র ছিলেন।

এ বিষয়ে কালিহাতী থানার এসআই আলামিন জানান, খবর পেয়ে গান্ধিনা জান্নাতুল ফেরদৌস মাদ্রাসা থেকে রাকিবুলের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এব্যাপারে কালিহাতী থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

এ দিকে রাকিবুলের মা রিমি জানান, প্রায় ২২ দিন আগে রাকিবুলকে গান্ধিনা জান্নাতুল ফেরদৌস মাদ্রাসায় ভর্তি করি। ভর্তি করার পর থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ৪ বার একা একাই বাড়িতে চলে আসছে। একা একাই বাড়িতে আসার বিষয়ে জানতে চাইলে রাকিবুল বার বার বলছে হুজুর মারপিট করে আমি আর ওই মাদ্রাসায় যামুনা। পরে যতবার আসছে ততবারই আমি আবার মাদ্রাসায় রেখে আসছি। সর্বশেষ গত শুক্রবার আবার চলে আসলে পরেরদিন শনিবার সকালে বুঝিয়ে আবার রাকিবুল ও আমার ছোট ছেলে ইব্রাহিমকে ওই মাদরাসায় রেখে আসি।

তিনি আরও জানান, সকালে রেখে আসার পর বিকেলে মাদ্রাসার হুজুর রাকিবুলের বাবাকে ফোন দিয়ে জরুরি কথা আছে বলে মাদ্রাসায় ডেকে নেয়। সেসময় আমিও তার সাথে যাই। যাওয়ার পর অনেকক্ষণ হুজুর বিভিন্ন ধরনের কথা বলার পরে বলে আপনার ছেলে ফাঁস দিয়ে মারা গেছে। পরে যে ঘরে ছিল সেই ঘরে গিয়ে দেখি রাকিবুল ঝুলে আছে। তার কিছুক্ষণ পরেই পুলিশ গিয়ে লাশ থানায় নিয়ে আসে।

তিনি বলেন, আমার ছোট ছেলের মাধ্যমে আমরা জানতে পারছি যে, দুপুরে হুজুর রাকিবুলকে ভাত খেতে বলছিল কিন্তু ভাত না খাওয়ায় হুজুর রাকিবুলকে মারপিট করেছে এবং আছরের নামাজের সময় আমার দুই ছেলেকে ঘরে রেখে তালা দিয়ে হুজুর নামাজে গিয়েছিল। এঘটনায় আমরা সুষ্ঠু ও সঠিক তদন্ত দাবি করছি।

Type and hit Enter to search

Close