Breaking News

টাঙ্গাইলে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় ইউএনও’র বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রেম ও শারিরীক সম্পর্কের ঘটনার অভিযোগ এনে টাঙ্গাইলে এক কলেজছাত্রীর দায়ের করা মামলায় বাসাইলের সাবেক ইউএনও মো. মনজুর হোসেনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

সোমবার (২৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় টাঙ্গাইল সদর থানা আমলি আদালতের বিচারক মনিরা সুলতানা এ আদেশ দেন। পিবিআইয়ের তদন্তে প্রাথমিকভাবে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় এ আদেশ দেওয়া হয়েছে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, মো. মনজুর হোসেন ২০২১ সালে টাঙ্গাইলের বাসাইলে ইউএনও হিসেবে কর্মরত থাকার সময় ফেসবুকের মাধ্যমে মির্জাপুরের এক কলেজছাত্রীর সঙ্গে পরিচয় হয়। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে বিয়ের আশ্বাসে মনজুর হোসেন বিভিন্ন সময় ওই কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ করেন।

তারপর টাঙ্গাইল শহরে বাসা ভাড়া করে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে তারা একত্রে কয়েক মাস বসবাসও করেন। পরে ওই কলেজছাত্রী বিয়ের জন্য চাপ দিলে মনজুর হোসেন তার সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করেন। এ ঘটনায় ২০২২ সালের ২১ জুন কলেজছাত্রী মামলা করেন। 

আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ দেন।টাঙ্গাইল পিবিআই মামলাটি তদন্ত করে ২০২২ সালের ২৯ ডিসেম্বর আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করে। তদন্তে আসামির বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৪৯৩ ধারার অপরাধ প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

প্রসঙ্গত প্রকাশ, বাসাইলের সাবেক উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মনজুর হোসেন রাজবাড়ী জেলার পাংশা থানার চরঝিকড়ী গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে। বর্তমানে তিনি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে ওএসডি হিসেবে সংযুক্ত আছেন।

Type and hit Enter to search

Close