Breaking News

কালিহাতীতে গ্রামবাসীর বাঁশের সাঁকোই ভরসা

সাইদুর রহমান সমীর,টাঙ্গাইল প্রতিনিধি:টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে ১৪ লাখ টাকা ব্যয়ে একটি সেতু খালে ভেঙে একপাশে দেবে আছে দুই বছর ধরে। সেই সঙ্গে বন্যায় সেতুর দুই পাশের সংযোগ সড়কের মাটিও স্রোতে ভেসে গেছে। সেতুটি নির্মাণ করে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর। 

জানা গেছে, ২০১৪-১৫ অর্থবছরে কোকডহরা ইউনিয়নের বলধী পাকা রাস্তা সংলগ্ন ঠাকুরবাড়ি সামনে খালে ২০ ফুট দৈর্ঘ্যর একটি সেতু নির্মাণ করা হয়।  সেতুটি নির্মাণে ব্যয় হয় মোট ১৪ লাখ ৫৪ হাজার ৫৫২ টাকা।

স্থানীয় ইউপি সদস্য বাছেদ মিয়া বলেন, বন্যায় সেতুর পশ্চিম পাশের ভেঙে দেবে যায় সেতুটি। দুই পাশের সংযোগ সড়কের মাটি স্রোতে ধসে গেছে।
কয়েকটি গ্রামের মানুষ প্রয়োজনের তাগিদে বাঁশের সাকো বানিয়ে সেতুতে উঠে চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছে।যানবাহন নিয়ে ঘুরে যাতায়াত করতে হচ্ছে তাদের। সেতুটি পুনরায় নির্মাণ না করায় দুর্ভোগে রয়েছেন কয়েক গ্রামের  হাজার মানুষ।

স্থানীয়দের অভিযোগ, খালের আয়তনের তুলনায় সেতুর দৈর্ঘ্য অনেক কম ছিল। সেতুটি নির্মাণে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার ও অপরিকল্পিতভাবে হওয়ায় শুরু থেকে প্রতি বছর সেতুর দুই পাশে সংযোগ সড়কের মাটি পানির স্রোতে ধসে যায়।

এরপর দুই বছর পেরিয়ে গেলেও সেতুটি সংস্কার বা নতুন সেতু নির্মাণের উদ্যোগ নেয়নি কর্তৃপক্ষ। সড়কটিতে দ্রুত একটি সেতু নির্মাণের দাবি জানান।

Type and hit Enter to search

Close