Breaking News

টাঙ্গাইলে স্কুলছাত্রী ধর্ষণের দায়ে ধর্ষকের যাবজ্জীবন

সাইদুর রহমান সমীর,টাঙ্গাইলে প্রতিনিধি: 
টাঙ্গাইলে চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রীকে অপহরণের ও ধর্ষণের মামলায় একজনকে দু’টি ধারায় পৃথকভাবে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড এবং এক লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ছয়মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।


বুধবার (৯ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টায় টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক খালেদা ইয়াসমিন এ রায় দেন। দন্ডিত আসামি- টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার ভুটিয়া গ্রামের আবু হানিফের ছেলে আলমগীর হোসেন (৩৬)। বর্তমানে তিনি পলাতক রয়েছেন।

টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট আলী আহমেদ এবং এপিপি মোহাম্মদ আব্দুল কুদ্দুছ বিষয়টি নিশ্চত করে জানান, ভিকটিম স্থানীয় একটি স্কুলের চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী ছিল। গত ২০০৮ সালের ৭ সেপ্টেম্বর সকালে অন্যান্য দিনের মতো সে স্কুলে যায়। সেখান থেকে তাকে অপহরণ করে দন্ডিত আসামি আলমগীর হোসেন তার মামার বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করেন। পরদিন ভিকটিমের বাবা বাদি হয়ে আলমগীর হোসেনের বিরুদ্ধে গোপালপুর থানায় মামলা করেন। ২০০৮ সালের ১৮ ডিসেম্বর গোপালপুর থানার এস.আই. তোজাম্মেল হক একমাত্র আসামি আলমগীর হোসেনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ৭ এবং ৯(১) ধারায় আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। এ দু’টি ধারায় পৃথকভাবে আসামিকে সাজা প্রদান করেন আদালত।


তবে উভয় অপরাধের সাজা একত্রে চলবে বলে বিচারক তার রায়ে উল্লেখ করেন। আসামি হাজতবাসের পর জামিনে মুক্তি পেয়ে পলাতক রয়েছেন। আদালত আসামির অনুপস্থিতিতেই এ রায় ঘোষণা করেন।

Type and hit Enter to search

Close