নাটোরে ইউএনওর গাড়ির চাপায় সাংবাদিক নিহত

নাটোরের সিংড়ায় নলডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুখময় সরকারের সরকারি গাড়ির নিচে চাপা পড়ে সোহেল আহমেদ জীবন (৩৩) নামের এক সাংবাদিক নিহত হয়েছেন।

আজ সোমবার সিংড়া উপজেলার নিংগইন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সোহেল আহমেদ বগুড়া থেকে প্রকাশিত দৈনিক দুরন্ত সংবাদের সিংড়া উপজেলা প্রতিনিধি এবং সিংড়া বন্দর স্কুল অ্যান্ড কলেজের সহকারী শিক্ষক।

ঝলমলিয়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রেজওয়ানুল ইসলাম  জানান, আজ সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে সিংড়া থেকে মোটরসাইকেলে করে নিজ কর্মস্থল বন্দর স্কুল অ্যান্ড কলেজে যাচ্ছিলেন সোহেল আহমেদ। পথে নিংগইন পেট্রোল পাম্পের পাশে বিপরীত থেকে আসা নলডাঙ্গা নির্বাহী কর্মকর্তার সরকারি গাড়ির সঙ্গে তার মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

 এ সময় গাড়ির নিচে চাপা পড়ে সোহেল আহমেদ গুরুতর আহত হন। তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

এ ব্যাপারে এখনো থানায় কোনো অভিযোগ করা হয়নি।সিংড়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মোল্লা ইমরান আলী বলেন, 'ইউএনর স্ত্রী সিংড়া গোল-ই-আফরোজ কলেজের শিক্ষিকা। 

স্থানীয় লোকজন বলছেন, তাকে কলেজে নামিয়ে দিতে ইউএনওর সরকারি গাড়ি যাচ্ছিল সিংড়ায়। পথে এই দুর্ঘটনা ঘটে। কেন নলডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার গাড়ি সিংড়ায় গেল এবং কীভাবে দুর্ঘটনা ঘটল তা তদন্ত করে প্রকৃত ঘটনা বের করতে হবে।'

জানতে চাইলে স্ত্রীকে সরকারি গাড়িতে কলেজে নামিয়ে দিতে যাওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেন নলডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুখময় সরকার। 

তিনি বলেন, 'গাড়িতে ওই সময় শুধু চালক ছিলেন। চালক সিংড়া ফিলিং স্টেশন থেকে গাড়ির তেল আনতে গেলে গাড়িটির সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কা লাগে। এ সময় একজন আহত হন। পরে তিনি মারা গেছেন বলে জেনেছি।'

buttons=(Accept !) days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !
To Top