রবিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০২১

সখীপুরে খাবার খেয়ে শিশুসহ এক পরিবারের ৮ জন হাসপাতালে ভর্তি

টাঙ্গাইলের সখীপুরে খাবার খেয়ে শিশুসহ এক পরিবারের আটজন অচেতন। রবিবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে উপজেলার বিন্নাখাইড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তারা হলো ওই এলাকার মীর আব্দুল্লাহ (৪২), তার স্ত্রী ফারজানা (৩২), ছেলে মুহিম (০৮) এবং ওই পরিবারের আবদুল মজিদ (৬৩), মীর নায়েব আলী (৬৭), মীর আরাফাত (২৪), জমিলা বেগম (৬০) ও কদ ভানু (৫০)। কে বা কারা খাবারের সাথে নেশা জাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে দিয়েছে বলে ধারনা করছে ওই পরিবারের অন্যানরা।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের মতো ভর্তা ও ভাজি দিয়ে সকালের খাবার খায় সবাই। খাবার খাওয়ার ২০ বা ৩০ মিনিটের পর ভালো লাগছে না, অস্থির লাগছে বলে পর্যায় ক্রমে সবাই ঘুমিয়ে পড়ে। প্রতিবেশিরা দুপুরের একটু আগে ওই বাড়িতে গিয়ে দেখে সবাই ঘুমিয়ে আছে। ডাকাডাকি করলেও কেউ কথা বলেনা। এসময় তারা চিৎকার করলে আশপাশে থেকে অন্যেরা এগিয়ে আসে।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে চেতন হওয়া ফারজানা আক্তার জানায়, সকালে ভাত খাওয়ার পর প্রথমে আমার শ্বাশুড়ি বলে 'কেমন যানি লাগে, ভাল্লাগে না' বলেই বিছানায় গিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। তারপর আমারও যেন কেমন মাথায় চক্কর দেয়। ভমি আসে। পরে আমিও ঘুমাতে যাই। এ ভাবে আমাদের পরিবারের ৮ জন অচেতন হয়। প্রতিবেশিরা আমাদের হাসপাতালে ভর্তি করান।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘটনাটি খুবই দুঃখ জনক। ওনারা সবাই হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এ ধরনের ঘটনা এই গ্রামে প্রথম।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন ভিউ