রবিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০২১

ভূঞাপুরে সাংবাদিক লাঞ্ছিতের ঘটনায় বিক্ষোভ

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে জরুরী রোগীবাহী এ্যাম্বুলেন্সের ভিডিও ধারণকালে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মহীউদ্দীন আহমেদ আনন্দ টেলিভিশনের টাঙ্গাইল জেলা প্রতিনিধি আল আমিন শোভনের ক্যামেরা ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টাসহ শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন।

এ ঘটনার প্রতিবাদে রোববার (১২ ডিসেম্বর) দুপুরে ভূঞাপুর প্রেসক্লাবের উদ্যোগে এক বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করা হয়। বিক্ষোভে অংশগ্রহণ করেন ভূঞাপুর, ঘাটাইল, কালিহাতী ও টাঙ্গাইলের সাংবাদিকবৃন্দ। বিক্ষোভ মিছিলটি উপজেলার প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে ভূঞাপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়।ভূঞাপুর প্রেসক্লাবে আলোচনা সভা থেকে আগামীকাল সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) সকাল ১১টায় মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয় এবং উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে অনতিবিলম্বে অপসারণের দাবি জানানো হয়।

এর আগে গত ১১ ডিসেম্বর বিকেলে ভূঞাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত রোগীরা চিকিৎসা নিতে আসেন। এমন তথ্যমতে সাংবাদিক আল আমিন শোভন তার পেশাগত দায়িত্ব পালনে উক্ত হাসপাতালে গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করেন। পরে মুমূর্ষু একজন রোগীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজে প্রেরণ করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। 

সে সময় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মহীউদ্দিন আহমেদ মুমূর্ষু ওই রোগীর সঙ্গে একই এ্যাম্বুলেন্সে টাঙ্গাইলের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে। পরে মুমূর্ষু ওই রোগীকে এ্যাম্বুলেন্সে উঠানোর ভিডিও করতে গেলে ডা. মহীউদ্দিন সাংবাদিক শোভনের ক্যামেরা ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। ক্যামেরা ছিনিয়ে নিতে ব্যর্থ হলে তাকে প্রকাশ্যে জনসম্মুখে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিতসহ অকথ্য ভাষায় গালাগালি করেন।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন ভিউ