শনিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০২১

দেশে প্রথমবার ২ জনের দেহে ওমিক্রন শনাক্ত

দেশে প্রথমবারের মতো করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। জিম্বাবুয়ে ফেরত বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের দুই সদস্যের দেহে ওমিক্রন শনাক্ত হয়।

বর্তমানে তাদেরকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে এবং তাদের শারীরিক অবস্থা ভাল আছে বলেও জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। দুপুরে রাজধানীর ঢাকা শিশু হাসপাতালে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান তিনি।এসময় তিনি আরো জানান, সম্প্রতি জিম্বাবুয়ে থেকে বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব খেলে দেশে ফিরেছিল বাংলাদেশ নারী দল। দুই ক্রিকেটারের মধ্যে ওমিক্রন ভাইরাস আছে কিনা যাচাই করছে আইইডিসিআর। আফ্রিকা থেকে ফেরার পর থেকে হোটেল কোয়ারেন্টিনে ছিলেন দলের সদস্যরা।

সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হওয়ার পর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এটিকে উদ্বেগজনক ভ্যারিয়েন্ট হিসেবে চিহ্নিত করেছে। এরপর থেকেই ওমিক্রনের ভয়াবহতা ও সংক্রমণ ছড়ানোর ক্ষমতা নিয়ে কাজ করছেন বিজ্ঞানীরা।
দক্ষিণ আফ্রিকার কোয়াজুলু-নাটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক রিচার্ড লেসেলস বলেন, মিউটেশনগুলো ভাইরাসকে সংক্রমণে, এক ব্যক্তি থেকে আরেক ব্যক্তিতে ছড়িয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে শক্তিশালী করেছে বলে আশঙ্কা করছি আমরা। ইমিউন সিস্টেমের বিভিন্ন অংশকে পাশ কাটিয়ে শরীরে প্রবেশ করার সক্ষমতাও থাকতে পারে এগুলোর।'

এর আগেও করোনাভাইরাসের নতুন আবিষ্কৃত হওয়া ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছিল। তবে অনেক ক্ষেত্রেই দেখা গেছে আতঙ্ক শুধু কাগজ কলমেই সীমাবদ্ধ ছিল।

এ বছরের শুরুতে মানুষের মধ্যে সবচেয়ে বেশি আতঙ্ক তৈরি করেছিল বেটা ভ্যারিয়েন্ট, কারণ ইমিউন সিস্টেমকে পাশ কাটিয়ে শরীরে প্রবেশ করার সক্ষমতা সবচেয়ে বেশি ছিল ঐ ভ্যারিয়েন্টের। কিন্তু পরবর্তীতে দ্রুত সংক্রমিত হওয়া ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টই বেশি ভয়াবহ হিসেবে প্রতীয়মান হয়।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন ভিউ